সালাফী আকিদা ও মানহাজে - Salafi Forum

Salafi Forum হচ্ছে সালাফী ও সালাফদের আকিদা, মানহাজ শিক্ষায় নিবেদিত একটি সমৃদ্ধ অনলাইন কমিউনিটি ফোরাম। জ্ঞানগর্ভ আলোচনায় নিযুক্ত হউন, সালাফী আলেমদের দিকনির্দেশনা অনুসন্ধান করুন। আপনার ইলম প্রসারিত করুন, আপনার ঈমানকে শক্তিশালী করুন এবং সালাফিদের সাথে দ্বীনি সম্পর্ক গড়ে তুলুন। বিশুদ্ধ আকিদা ও মানহাজের জ্ঞান অর্জন করতে, ও সালাফীদের দৃষ্টিভঙ্গি শেয়ার করতে এবং ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বের চেতনাকে আলিঙ্গন করতে আজই আমাদের সাথে যোগ দিন।
S

সালাত প্রসঙ্গ: কাবলাল জুমা ও বাদাল জুমা

shipa

Inquisitive

Q&A Master
Salafi User
Credit
1,345
প্রশ্ন: জুমার আগে ও পরে কয় রাকাত সুন্নত সালাত (কাবলাল জুমা ও বাদাল জুমা) পড়তে হয়?

উত্তর জুমার নামাজ দুই রাকাত ফরজ। এর আগে দু রাকাত-দু রাকাত করে যত খুশি পড়া যায়। কাবলাল জুমা (জুমার আগে) চার রাকাত সুন্নত পড়তেই হবে এমন কোন বাধ্যবাধকতা নেই।

যদি কেউ আগে ভাগে মসজিদে আসে তাহলে প্রথমে দু রাকাত তাহিয়াতুল মসজিদ পড়বে তারপর সাধ্যানুযায়ী দু রাকাত দু রাকাত করে সুন্নত পড়তে থাকবে আল্লাহ যতটকু তাওফিক দান করেন।

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,
مَنْ اغْتَسَلَ يَوْمَ الْجُمُعَةِ ، وَتَطَهَّرَ بِمَا اسْتَطَاعَ مِنْ طُهْرٍ ، ثُمَّ ادَّهَنَ أَوْ مَسَّ مِنْ طِيبٍ ، ثُمَّ رَاحَ فَلَمْ يُفَرِّقْ بَيْنَ اثْنَيْنِ ، فَصَلَّى مَا كُتِبَ لَهُ ، ثُمَ إِذَا خَرَجَ الْإِمَامُ أَنْصَتَ ، غُفِرَ لَهُ مَا بَيْنَهُ وَبَيْنَ الْجُمُعَةِ الْأُخْرَى
“যে ব্যক্তি জুমার দিন যথা নিয়মে গোসল করে, দাঁত পরিষ্কার করে, খোশবূ থাকলে তা ব্যবহার করে, তার সবচেয়ে সুন্দর পোশাক পরে। অতঃপর (মসজিদে) যায়- নামাজিদের ঘাড় ডিঙিয়ে আগে যায় না। অতঃপর আল্লাহ যতটুকু চান ততটুকু নামাজ পড়ে। তারপর ইমাম উপস্থিত হলে নীরব ও নিশ্চুপ থাকে এবং নামাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোন কথা বলে না, সে ব্যক্তির এ কাজ এই জুমুআহ থেকে অপর জুমার মধ্যবর্তীকালে কৃত পাপের কাফফারা হয়ে যায়।” [আহমদ, মুসনাদ, ইবনে মাজাহ]

ইবনে তাইমিয়া রাহ. বলেন,
وَهَذَا هُوَ الْمَأْثُورُ عَنْ الصَّحَابَةِ ، كَانُوا إذَا أَتَوْا الْمَسْجِدَ يَوْمَ الْجُمُعَةِ يُصَلُّونَ مِنْ حِينِ يَدْخُلُونَ مَا تَيَسَّرَ ، فَمِنْهُمْ مَنْ يُصَلِّي عَشْرَ رَكَعَاتٍ ، وَمِنْهُمْ مَنْ يُصَلِّي اثْنَتَيْ عَشْرَةَ رَكْعَةً ، وَمِنْهُمْ مَنْ يُصَلِّي ثَمَانِ رَكَعَاتٍ ، وَمِنْهُمْ مَنْ يُصَلِّي أَقَلَّ مِنْ ذَلِكَ ".
انتهى من "مجموع الفتاوى" (24/ 189) .
“সাহাবিদের থেকে বর্ণিত হয়েছে যে, তারা জুমার দিন যখন মসজিদে যেতেন তখন মসজিদে প্রবেশের পর যথাসাধ্য সালাত পড়তেন। কেউ পড়তেন দশ রাকাত, কেউ পড়তেন বারো রাকাত, কেউ পড়তেন আট রাকাত আর কেউ পড়তেন তার চেয়ে কম।” (মাজমুউুল ফাতাওয়া ২৪/১৮৯)

ইমাম খুতবা দেওয়া অবস্থায় কেউ যদি মসজিদে আসে তাহলে কেবল দু রাকাত দুখুলুল মসজিদ/তাহিয়াতুল মসজিদ পড়বে। তারপর মনোযোগ সহকারে খুতবা শুনবে।
রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,
إذا جاء أحدكم والإمام يخطب - أو قد خرج - فليصلِّ ركعتين -متفق عليه
“তোমাদের কেউ যখন ইমাম সাহেব খুতবা দেওয়ার সময় জুমার সালাতে উপস্থিত হয় তখন সে সংক্ষেপে দু রাকাত সালাত আদায় করে নেয়।” [সহীহ বুখারী, নফল নামাজ অধ্যায় ও মুসলিম, অধ্যায়: জুমার নামাজ]

জুমার নামাজের পরে (বাদাল জুমা) কেউ যদি মসজিদেই সুন্নাত পড়তে চায় তাহলে চার রাকাত পড়ার কথা বর্ণিত হয়েছে।
عن أبي هريرة رضي الله عنه أن رسول الله صلى الله عليه وسلم قال : إِذَا صَلَّى أَحَدُكُمْ الْجُمُعَةَ فَلْيُصَلِّ بَعْدَهَا أَرْبَعًا رواه مسلم (881)
আর বাড়িতে গিয়ে পড়লে দুই রাকাত পড়ার কথা এসেছে। রাসূল সাল্লাল্লাহু সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জুমার নামাজের পরে বাড়িতে গিয়ে দুই রাকাত সুন্নাত পড়তেন।
عَنْ عَبْدِ اللَّهِ بْنِ عُمَرَ رضي الله عنهما أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم : كَانَ لاَ يُصَلِّى بَعْدَ الْجُمُعَةِ حَتَّى يَنْصَرِفَ ، فَيُصَلِّى رَكْعَتَيْنِ رواه البخاري (937) ، ومسلم (882) .
[বুখারী ও মুসলিম]

মোটকথা, উপরোক্ত হাদিস সমূহের আলোকে কেউ যদি জুমার পরে মসজিদে সুন্নত পড়তে চায় তাহলে চার রাকাত পড়বে আর বাড়িতে গিয়ে পড়তে চাইলে দু রাকাত পড়বে। এটাই সৌদি আরবের স্থায়ী ফতোয়া কমিটির অভিমত। আল্লাহু আলাম।

উত্তর প্রদানে: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
 
Last edited by a moderator:
Top